মুন্নে ভারতী এবং আনন্দবাজারের কল্পলোক

আনন্দবাজার আজ লিখেছে,

বিহারে বজরঙ্গ দল নতুন ‘রঙ্গ’ দেখিয়েছে। এক সাংবাদিকের গাড়ি থামিয়ে বজরঙ্গিদের নির্দেশ— ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে হবে। না বললে গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হবে। ঘটনাটা সাংবাদিকের সঙ্গে ঘটেছে, বড় বিষয় এটা নয়।

এরপর প্রবন্ধটি গতানুগতিক সাংস্কৃতিক মার্ক্সবাদের চিরায়ত ধারা অনুসরণ করেছে। সংক্ষেপে,

ক) এই কাজ থেকে প্রমাণ হয়ে গেছে যে বজরঙ্গ দল ফ্যাসিস্ট (অর্থ জিজ্ঞাসা করে লজ্জা দেবেন না। কেউ কি জানে এর মানে কি? শ্রীমতী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা জ্যোতি বসু কোনদিন নিজেদের ছাড়া অন্যের মতকে সম্মান না দিয়েও গণতন্ত্রী আর জোট সরকার চালিয়েও মোদি ফ্যাসিস্ট।)

খ) সুতরাং হিন্দুত্বের কোন ভাল কিছু নেই।

গ) সুতরাং ভোটটা বিজেপি কে দেবেন না।

প্রশ্ন হল, কে এই সাংবাদিক যিনি হুমকির স্বীকার। এই সাংবাদিক ভদ্রলোকের নাম মুন্নে ভারতী এবং কাজ করেন NDTV তে। ভদ্রলোকের স্ত্রী বোরখা পরে ঘোরেন। ভদ্রলোক নিজের পরিচয় ঊর্দ্দুতে লিখতে স্বচ্ছন্দ।

NDTV এর সাংবাদিক দের সাংবাদিকতা অতি প্রসিদ্ধ – দেখুন সুনেত্রা চৌধুরীর মিথ্যাচারিতা, বরখা দত্তের অন্তহীন চাতুরি, নিধি রাজদানের মিথ্যা প্রচার, তেমনই এও জানা কথা যে তাদের প্রতারণার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ায় তাদের বিজেপি সরকারের উপর আক্রোশ সীমাহীন। এই সংস্থার এক সাংবাদিক কি এই কথাটি কল্পনা করে বলতে পারেন না যে তাঁকে বজরং দলের লোক হুমকি দিয়েছে?

মুন্নে ভারতীর কথার কি কোন সাক্ষী আছে নিজের পরিবারের লোক ছাড়া? আছে কি অন্য কোন প্রমাণ তাঁর অভিযোগের পক্ষে?

আমাদের জানা নেই। আপনাদের জানা থাকলে জানাবেন। অপেক্ষায় থাকব।

এও কি সম্ভব যে আনন্দবাজারের এসব জানা আছে আর জেনেও না জানার ভান করছে? আপনাদের কি মনে হয়?

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s